ছবি এডিট করে নারীরসাথে জড়িয়ে সম্মানহানী: প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন।সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি:

0
13

ফেসবুক থেকে যুবকের ছবি নিয়ে কম্পিউটারে এডিট করে নারীর সাথে জড়িয়ে অপপ্রচার মুলোক লিফলেট ছড়িয়ে দিয়ে সম্মানহানীর ঘটনার প্রতিবাদে এবং জড়িতদের গ্রেপ্তারের দাবীতে দেবহাটায় সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহষ্পতিবার বেলা ১২টায় দেবহাটা প্রেসক্লাব হলরুমে সংবাদ সম্মেলনটি করেন উপজেলার কুলিয়া ইউনিয়নের সুবর্ণাবাদ গ্রামের পরিতোষ চন্দ্র মন্ডলের ছেলে সৌমিত্র কুমার মন্ডল।সংবাদ সম্মেলণকালে সৌমিত্র মন্ডল তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, গত ২৪ সেপ্টেম্বর রাত ১১ টার দিকে পূর্ব কুলিয়া দুর্গা মন্ডপ থেকে পুজা দেখে ফেরার পথে গাজির খাল নামক স্থানে পৌঁছে রাস্তার ওপর আমার ছবি সম্বলিত কিছু লিফলেট পড়ে থাকতে দেখি। যার মধ্যে থেকে একটি লিফলেট তুলে মোবাইলের আলো জালিয়ে দেখতে পাই যে আমার ব্যাক্তিগত ফেসবুক আইডিতে আপলোড করা আমার পরিবারের বিভিন্ন সদস্যদের ছবি থেকে অন্যান্যদের ছবি বাদ দিয়ে কেবলমাত্র আমার ছবি এবং আমার শ্যালকের স্ত্রীর ছবি কে বা কারা ডাউনলোড করে তা কম্পিউটারের মাধ্যমে ফটোশপে এডিট করে নোংরা কু-রুচিপূর্ন অবৈধ সম্পর্কের কথা লিখে লিফলেট ছাপিয়ে ছড়িয়ে দিয়েছে।মুলত ফেসবুকে আপলোডকৃত মুল ছবিটিতে থাকা আমার ছোট ছেলের ছবি বাদ দিয়ে ফটোশপের কারসাজিতে শ্যালকের স্ত্রীর ছবির সাথে আমার ছবি যুক্ত করে আমাদের মান সম্মানহানী করার মানসিকতায় অপপ্রচার ও বিভ্রান্তিকর এসব লিফলেট ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে।পরবর্তীতে আমার এলাকার আরো বিভিন্ন স্থানে একই ধরনের লিফলেট পাওয়া গিয়েছে। আমার ধারনা আমার শত্রুপক্ষ পরিকল্পিতভাবে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়ে আমাকে সমাজে হেয় পতিপন্ন করতেই এমন মিথ্যা গুজব রটাচ্ছে এবং অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে। এতে করে সমাজে আমার ও আমার পরিবারের ব্যাপক সম্মানহানী ঘটছে।যাতে করে আগামীতে আমার মতো সমাজের অন্য কোনো সম্মানী ব্যাক্তিকে এধরনের মিথ্যা অপপ্রচারের শিকার না হতে হয় সেজন্য ৪ নভেম্বর আমি বাদী হয়ে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত সন্দেহভাজন ব্যাক্তিদের বিরুদ্ধে দেবহাটা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছি। উক্ত কু-রটনাকারীদের শাস্তি নিশ্চিতের জন্য আমি সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।